২০০৬ সালে চট্টগ্রাম টেস্টে গিলেস্পির সঙ্গে ৩২০ রানের জুটি গড়েছেন হাসি

মুশফিকদের ‘বিশ্বাস’কেই সমীহ হাসির

২০০৬ সালে চট্টগ্রাম টেস্টে গিলেস্পির সঙ্গে ৩২০ রানের জুটি গড়েছেন হাসি
২০০৬ সালে চট্টগ্রাম টেস্টে গিলেস্পির সঙ্গে ৩২০ রানের জুটি গড়েছেন হাসি

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট দল এখন বাংলাদেশে। দুই টেস্টের সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু ২৭ আগস্ট। ২০০৬ সালের পর এই প্রথম বাংলাদেশের মাটিতে টেস্ট খেলবে স্মিথ-ওয়ার্নাররা। ১১ বছর আগে সেই সফরে অস্ট্রেলীয় দলরে অন্যতম সদস্য মাইক হাসি মুখিয়ে এই সিরিজ নিয়ে। সেবার চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টেস্টে জেসন গিলেস্পির অপ্রত্যাশিত ডাবল সেঞ্চুরির সহায়ক হিসেবে নিজেও খেলেছিলেন ১৮২ রানের দারুণ এক ইনিংস। গিলেস্পির সঙ্গে তাঁর ৩২০ রানের জুটি বাংলাদেশকে দাঁড় করিয়েছিল বড় হারের সামনে। ফতুল্লায় সেই সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ প্রায় জিতে যাওয়ার অবস্থায় থাকলেও চট্টগ্রামে গিলেস্পি-হাসি মাটিতে টেনে নামিয়েছিলেন হাবিবুল বাশারের দলকে। হাসি অবশ্য ১১ বছর পর অমন কিছুর পুনরাবৃত্তি দেখছেন না; বরং এই সিরিজটা চ্যালেঞ্জিংই মনে হচ্ছে তাঁর।

বাংলাদেশকে এখন অনেক কৌশলী প্রতিপক্ষই হিসেবেই মনে করেন হাসি, ‘বাংলাদেশের এই দলের খেলোয়াড়েরা নিজেদের খেলাটা অনেক ভালো বোঝে। অস্ট্রেলিয়ার জন্য এটি চ্যালেঞ্জিং সিরিজ। নিজেদের কন্ডিশনে বাংলাদেশ খুবই ভালো খেলে। তারা দল হিসেবে অনেক উন্নতি করেছে।’

যে-কাউকে হারানোর ‘বিশ্বাস’ বাংলাদেশের আছে, হাসির অভিমত এমনটাই। তিনি মনে করেন, এই বিশ্বাসই বাংলাদেশকে কঠিন প্রতিপক্ষ হিসেবে তৈরি করেছে, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যদি বিশ্বাস করেন আপনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন ও জিততে পারেন, তাতেই ম্যাচ অর্ধেক জেতা হয়ে যায়। আমি মনে করি, বহু বছর ধরে তাদের এই বিশ্বাস ছিল না। বাংলাদেশ দল বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার আছে, যারা অনেক দিন ধরে একসঙ্গে খেলছে।’

গেল বছর ইংল্যান্ড, এরপর শ্রীলঙ্কার সঙ্গে টেস্ট জিতে নিজেদের অগ্রগতি দাপটের সঙ্গেই ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ। সে কারণেই ‘সমীহ’ অস্ট্রেলিয়ার। ২৭ আগস্ট মিরপুর টেস্টেই পরীক্ষা হয়ে যাবে টেস্টে কতটা এগিয়েছে বাংলাদেশ। সূত্র: ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *